1. techcampus24@gmail.com : Tech Campus :
আসছে নতুন ১০ টি প্রযুক্তি, যা পাল্টে দিতে পারে আপনার দৈনন্দিন জীবনযাত্রার মান! - Tech Campus
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০:৩২ পূর্বাহ্ন
Notice:
Welcome! Website in progress, contact us if you need any kind of website. Thanks

আসছে নতুন ১০ টি প্রযুক্তি, যা পাল্টে দিতে পারে আপনার দৈনন্দিন জীবনযাত্রার মান!

  • Update Time: শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৬০ Read Times

আজ থেকে ঠিক দশ পনের বছর আগে, 4 জি ছিলো নতুন জিনিস, টিভিগুলি ছিল অসহ্যকর এবং অনুষ্টানাদি ছিলো বিরক্তিকর। তাছাড়া সেল ফোনগুলো ছিলো বটমসেট এবং এনড্রোয়েড ছিলো তখন দুষপ্রাপ্প। অথচ চিন্তা করুন আগামী দশ বছর কী নিয়ে আসবে তা নিয়ে ভেবে দেখুন। যদি আমরা সত্যিই আমাদের উদ্ভাবনী সম্ভাবনা অবলম্বন করি, তবে এমন একাধিক প্রযুক্তি উদ্ভাবিত হবে যা আমাদের গ্রহটিকে যে ঝুঁকিপূর্ণ প্রান্তে ঠেলে দিচ্ছে তা সফলভাবে দূরে সরিয়ে দেবে। আপনি জানেন যে আমাদের পৃথিবী ভয়ংকর জলবায়ু বিপর্যয়ের মুখে এগিয়ে যাচ্ছে। এটি একটি অন্ধ বাস্তবতা ! আসুন তাই এক মূহুর্ত আর দেরী না করে এ বিপর্যয় কাটিয়ে উঠার প্রস্তুতি সেরে নেই। ২০২০ এর জানুয়ারীর শুরুতে আমেরিকার লাস ভেগাস শহরে সিইএস নামে একটি বিশাল কনজিউমার ইলেক্ট্রনিক্স ট্রেড শো অনুষ্ঠিত হয়, যেখানে বড় এবং ছোট সংস্থাগুলি তাদের কাজ করা সমস্ত দুর্দান্ত নতুন জিনিস প্রকাশ করে। এই জিনিসগুলির বেশিরভাগই প্রকৃত গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করার উদ্দেশ্য নয় বরং এগুলো আগামী ভবিষ্যৎ এর জন্য কতটুকু কার্যকরী তা দেখাই মূখ্য উদ্দেশ্য। তবুও, এটি দেখতে মজাদার। বাজারের জন্য প্রস্তুত সামগ্রীর বেশিরভাগ অংশের তুলনায় তুলনামূলকভাবে বিরক্তিকর হিসাবে আসে তবে বাস্তবে আপনার জীবনকে কিছুটা ঝরঝরে করে তুলবে বা আপনার দৈনন্দিন জীবন যাত্রাকে আরো সহজ করে তুলবে। নীচে সিইএস ট্রেড শো তে উপস্থাপিত ১০ টি সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ও আকর্ষনীয় টেকনলজি সম্পর্কে আলোচনা করা হলো।

১-মার্সিডিজ – বেনজ ভিশন এভিটিআর
২০২০ এ আর হয়ত এমন কোন গাড়ি উদ্ভাবন সম্ভব নয় যা এ গাড়ীকে টেক্কা দিতে পারবে।আপনি যদি চিন্তা করে থাকেন এমন কোন গাড়ি কি তৈরী করা সম্ভব যা উদ্ভিদ না হয়েও পরিবেশের সাথে এক হয়ে যেতে পারে বা পরিবেশ দূষন ছাড়াই চলতে পারে অথবা কোন চালক ছাড়াই তা চলতে পারে? এর উত্তরটা হলো মার্সিডিজ-বেনজ এর এই গাড়ি। মার্সিডিজ বেনজ এর জেমস ক্যামেরন এবং তার দলের সাথে মিলে উচ্চ প্রযুক্তি সম্পন্ন এ গাড়িটি তৈরী করেছেন এবং এ নামটি দিয়েছেন। এ গাড়িতে রয়েছে সয়ংক্রিয় চালক ব্যবস্থা। মানে এ গাড়িতে চালকের জন্য কোন স্টিয়ারিং এর ব্যবস্থা নেই।তাছাড়া এ গাড়ির চারপাশে রয়েছে এমন সব ডিভাইস যা গাড়ির যাত্রীদের শক্তি অনুমান করতে পারে।এতে করে যাত্রা হয় আরামদায়ক। এ গাড়িতে চাকার সাথে এমন প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে যাতে এটি কাকঁড়ার মতন একটি জায়গায় থেকে চারদিকে ঘুরতে পারে। এর পিছনদিকে ব্যবহার করা হয়েছে মিনি সোলার প্যানেল যা গাড়ির ব্যাটারিতে শক্তি প্রদান করে। মূলত এটিতে উড়ে যাওয়া ছাড়া বাকি সকল কাজ ই করা যায়। এটির ইন্টেরিয়র ডিজাইন এতটাই মনোমুগ্ধকর যে যেকোন মানুষ এটিতে বসলে তার মন হালকা হয়ে যাবে। তাছাড়া এটিতে এক্সিডেন্ট এর মাত্রাও কম কেননা এটিতে এন্টি এক্সিডেন্ট সেন্সর ব্যবহৃত হয়েছে। তাই বলা যেতেই পারে এটি তৈরী হওয়াতে আমাদের পূর্বের পরিবহন কল্পনা কে বদলে দিয়েছে।

২-ক্যাপ ক্যান্নাবিস স্টোরেজ
সিইএস শো তে সাড়া জাগানো অন্যতম আরেকটি ডিভাইস হলো কিপ ক্যান্নাবিস স্টোরেজ। এটি দেখতে অনেকটা এলার্ম ঘড়ির মতন। এটিতে ৫ ম প্রজন্মেরর কিছু ডিভাইস ব্যবহার করা হয়েছে। আপনি এটির ডিসপ্লেতে ঘড়ি দেখতে পারবেন। এর সাথে এটিতে আপডেট আবহাওয়া সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরা থাকে। তাছাড়া এটিতে রয়েছে ডেটা এনক্রিপশন সিস্টেম। ফলে যদি কেও ঘরে ছদ্ববেশে অবস্থান করে তবে তার কন্ঠস্বর দিয়ে তা আসল নকল শনাক্ত করতে পারে। তাছাড়া এটি আপনাকে ঘরে কেও ঢুকতে চেষ্টা করলে তা উপস্থিত সময়ে জানিয়ে দিবে। তবে এটিতে আপনি ঘরে কে আসতে পারবে তাদের ডেটা দিয়ে দিতে পারেন।ফলে তারা ঘরে কোন সময় কে আসল কে বাহিরে গেল সমস্ত খবর পেয়ে যাবেন। এটি এখন প্রি অর্ডার করে রাখা যায় যার মূল্য ধরা হয়েছে ১৫২ ডলার বা ১২ হাজার টাকা। এটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হলো ক্যাপ ল্যাবস।

৩- স্যামসাং সিরো টিভি
স্যামসাং প্রতিষ্ঠান সিইএস শোতে প্রদর্শন করেছে তাদের অত্যাধুনিক সিরো টিভি। এটি মূলত একটি ফ্লাট টিভি।এ টিভিতে সবচাইতে আকর্ষনীয় দিক হলো এর ওএলইডি যা ৪কে ভিজ্যুয়াল কে ছাড়িয়ে গেছে। স্যামসাং কোম্পানি টি কোরিয়ান এবং সিরো শব্দটি ও কোরিয়ান যার অর্থ হলো উলম্ব। এটি আনুভূমিক সমতল একটি টিভি। এটির সামনে বসে যখন দেখবেন তখন বাস্তবতার একটা অনুভূতি আসবে। এটির প্রতিটি ভিজ্যুয়াল অত্যান্ত সুস্পষ্ট। এটিকে আপনি একটি ৪৩ ইন্চি ফোন স্ক্রিন ভেবে নিতেই পারেন কেননা এটিকে এভাবেই তৈরী করা হয়েছে। বর্তমানে এটি বাজারজাত করা হয়নি তবে কোম্পানি পক্ষে হতে খুব শিগ্রই বাজারজাত করার আশ্বাস দেয়া হয়েছে।

৪-এলজি সিগনেচার ওএলইডি টিভি আর
২০২০ এ এলজি আরো একটি অত্যাধুনিক টিভি নিয়ে হাজির হয় যার নাম সিগনেচার ওএলইডি টিভি আর। এর আগে ২০১৯ সিইএস শোতে প্রথম এলজি অংশ নেয় এবং সেবার এলজি একটি স্মার্ট টিভি নিয়ে শোতে আত্মপ্রকাশ ঘঠায়। এবার তাদের এই সিগনেচার টিভি নিয়ে এসেছে। এটি দেখতে অনেকটাই ছোট। তবে এটিতে রয়েছে কিছু অত্যাধুনিক প্রযুক্তি এবং খুব ভালো ভিজ্যুয়াল যা আপনার টিভি দেখাকে আরো আরামদায়ক করে তুলবে। এটিকে যখন চালু করবেন তখন এর স্ক্রিন একটি বক্সের ভিতর হতে বেরিয়ে আসবে এবং বন্ধ করার পর পুনরায় তা আবার বক্সের ভিতর চলে যাবে। কি অদ্ভুত! এটিতে মাইক্রো সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে ফলে এটি দেখতে যেমন সুন্দর হয়েছে তেমনি ওজনে খুব পাতলা হয়েছে। তবে এটির দাম হয়ত কয়েকহাজার ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

৫-এলিয়েনওয়্যার কনসেপ্ট ইউএফও
এলিয়েনওয়্যার কনসেপ্ট ইউএফও একটি গেমিং ডিভাইস। এটি একটি আট ইন্চি ডিসপ্লে এবং স্ক্রিনটি তুলে রাখার জন্য একটি কিকস্ট্যান্ড।এটি মূলত একটি পিসি গেমিংয়ের নিটেন্ডো সুইচ। এটির দু পাশে রয়েছে জয়েস্টিক সিস্টেম যাতে গেমিংয়ের সময় সুবিধা হয়।তবে দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য, এর কোম্পানি এটিকে বর্তমানে বাজারজাতকরণ এর জন্য তৈরী করেনি বরং শুধুমাত্র একটা ধারনা দিয়েছে।তাই কবে নাগাদ এটিকে আমরা পাবো সে সম্পর্কে কোন ধারনা নেই। তাই আপাতত এটিকে সুইচ লাইব্রেরির সাথে আপনার ফোনে নিতে পারবেন।

৬-পপসকেট পপপাওয়ার হোম
পপসকেট পপপাওয়ার হোম এর নির্মাতা প্রতিষ্টান হলো পপসকেট কোং। এটি শো তে আত্মপ্রকাশ ঘটার পর লোকেদের মতে এটি আরো এক বছর আগে আত্মপ্রকাশ ঘঠা উচিৎ ছিলো। যদি আপনি কোন পপসকেট কিনে থাকেন তবে এটি জানেন যে পপগ্রিপটি অপসারন না করে পিছনে একটি পপগ্রিপ সহ নতুন একটি স্মার্টফোন চার্জ করা অসম্ভব। তাই এ সমস্যা দূর করার জন্য পপসকেট তাদের এই পপগ্রিপটি নিয়ে এসেছে। এর ফলে চার্জিং এর সময় অসুবিধার সৃষ্টি না করে সহজে যাতে অন্যগ্রীপ লাগিয়ে নতুন স্মার্টফোন চার্জ করা যায় সে ব্যবস্থা করা হয়েছে। এটির ফলে ফোনে চার্জিং সিস্টেম উন্নতমানের থাকে।বর্তমানে বাজারে এর প্রতিটি ৬০ ডলার বা ৫০০০ টাকা হিসাবে বিক্রি হয়। তাই বলা যায় এটি প্রায় অনেকটা সহজলভ্য।

৭-কুইবি ( স্ট্রিমিং)
আমাদের সবারই নেটফ্লিক্স,আমাজন প্রাইম ভিডিও ইত্যাদিতে স্ট্রিমিং করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাছাড়া এটিও দেখেছেন যখন স্ট্রিমিং পরিষেবাটির জন্য অর্থ প্রদান করেছেন তখন আপনাকে অন্যএকটি পপ আপ হয়। তবে কুইবি স্ট্রিমিংটা ঠিক অন্যরকম। এটিতে আপনি কেবল ফোনে দেখার জন্য মূল প্রোগ্রামিং ভিত্তিক সাবসস্ক্রিপশন সেবা পাবেন। ধরুন এর সিনেমাগুলো কয়েকটি ক্লিপে বিভক্ত হবে এবং সেগুলো সবকটি ১০/১৫ মিনিটের হবে। তাছাড়া কিছু শ্যুট এমন ভাবে নেয়া হয়েছে যদি আপনি সেগুলো ফোনে ফ্লিপ করতে করতে দেখেন তবে অন্যরকম এক অনুভূতি পাবেন। ইতিমধ্যো কিউবির সাথে ক্রিসি টেগেন, জ্যাক এফ্রন, ইদ্রিস এলবা এবং স্টিফ কারীর মত সকল তারকা অভিনেতারা চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন এর রহস্যময় এপিসোড এর জন্য। এই স্ট্রিমিং এ সিনেমা,স্টোরিজ,এপিসোড এ লাইভ সহ অনেক কিচু দেখতে পারবেন।সিইএস ট্রেড শোতে এর সংক্ষিপ্ত ধারনা দিতে উপস্থাপনা করেন ক্রিসি টেগেন। তাই আপনি যদি নেটফ্লিক্স বা আমাজন হতে ভালো কিচু আশা করেন তাহলে এটও আপনার জন্য শ্রেষ্ট হতে পারে। তবে এর জন্য আপনাকে প্রতি মাসে ৫ ডলার বা ৪০০ টাকা এবং কুইবি সং বিজ্ঞাপন সহ পেতে চাইলে ৮ ডলার ৬৫০ টাকা খরচা করতে হবে। গত ৬ এপ্রিল হতে এর কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

৮- লেনোভো থিংকপ্যাড এক্স ১ ফোল্ড
ভাঁজ করা যায় এমন ডিভাইস বর্তমানে খুব বিরল। যাও আছে তা খুবই দামী এবং অল্পসংখ্যক।তাই একে আরো বেগতিক করতে জনপ্রিয় ডিভাইস কোম্পানি লেনোভো নিয়ে এসেছে এক আকর্ষনীয় ফোল্ডএবল পিসি ল্যাপটপ থিংকপ্যাড এক্স ১। তবে এটি স্যামসাং গ্যালাক্সিরর ফোল্ডএবল ফোনর মত না। এই থিংকপ্যাড এ অনেকগুলো কনফিগারেশন ব্যবহার করা হয়েছে এবং যদি আপনার এই ল্যাপটপটিকে সেটআপের প্রয়োজন হয় তবে এটিতে রয়েছে মিনি কি বোর্ড যা এর ভিতর ফোল্ড অবস্থায় রয়েছে। এর ওএলইডি ডিসপ্লে ১৩.৩ ইন্চি ওজন ২.২ পাউন্ড এবং বিভিন্ন ধরনের চাপ পরীক্ষিত। এটিকে কোম্পানি ২০২০ এর মাঝামাঝি অবস্থায় ২৪৯৯ ডলার বা ২ লক্ষ ১২ হাজার টাকা এ বাজারে ছাড়ার সিদ্বান্ত নিয়েছে। এখন এটা দেখার পালা যে এটি কি স্যামসাং গ্যলাক্সির ফোল্ডএবল কে পাল্লা দিতে পারে কি না!

৯- রোজার টমাহক
এ ধরনের ডেক্সটপ পিসি প্রায়শই দেখা যায় তবে এটি একটু অন্যরকম।দেখতে অনেকখানি বাকি পিসি গুলি হতে ছোট এটি। এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান রোজার কোম্পানি। এটি তাদের নতুন টমাহক মডুলার। একে যেকোন জায়গায় রিপ্লেস করতে পারেন। এর জন্য কোন ডিভাইসের প্রয়োজন নেই। এটি খুবই শক্তিশালী এবং ইন্টেলের লেটেস্ট জেনারেশন ব্যবহার করা হয়েছে। তাছাড়া এটিতে গেমিং এর জন্য খুব অত্যাধুনিক গ্রাফিক্স ব্যবহার করা হয়েছে। অনেক পিসিই আছে যা গেমিং বান্ধব নয় এবং গেমিং এর আপগ্রেডেশন করে না।সেখানে টমাহক গেমিং স্মুথলি করে এবং লেটেস্ট আপগ্রেডেশন সাহায্য করে। মূলত এর কনফিগারেশন এমনি ভাবে তৈরী করা হয়েছে। রোজার কোম্পানি এর বাজারজাতকরণ এবং দাম নিয়ে মুখ না খুললেও খুব শিগ্রই যে আসতে চলেছে এটা নিয়ে সন্দেহ নেই।

১০- উইবার কানেক্ট স্মার্ট গ্রিলিং হা
এটি মূলত খাদ্য সম্পর্কিত একটি আবিষ্কার। এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হলো ওয়েবার ডট কম। এটির সাথে ফোনে একটি এ্যপস কানেক্ট করতে হবে। এই মেশিনটি মূলত স্মার্টফোনের সাথে সিন্ক করে। ডিভাইসটির মূল্য ধরা হয়েছে ১৩০ ডলার বা ১১ হাজার টাকা। এটির মাধ্যমে আপনার খাবার এবং রান্না করা মাংসের এবং সবজির অবস্থা এবং করনীয় সম্পর্কে আগাম জানান দিবে। মূলত হাবটি অবস্থা পর্যবেক্ষন করবে এবং ওয়েবার এ্যপস আপনাকে তথ্য জানিয়ে দিবে। যদিও এটি একটি সৌজন্য অবিষ্কার ছিলো তথাপি এটি সিইএস শো এর সবার নজর কেড়েছে।

Share This Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Read More News in This Category .....
©কপিরাইট 2020
Power by .Mahedi Hasan